গোলাপ জামুন মিষ্টি

সুজির গোলাপ জামুন মিষ্টি রেসিপি

আমরা সবাই মনে করে থাকি যে, ছানা বা গুড়া দুধ ছাড়া ধরনের মিষ্টি তৈরি করা যায় না। কিন্তুু এই ধারনা ভুল। ছানা ছাড়াও খুব সুন্দর নরম তুলতুলো মিষ্টি তৈরী করা যায়। সুজি দিয়ে খুব অল্প সময়ে গোলাপ জামুন মিষ্টি তৈরী করা যায়। এই মিষ্টি তৈরী করতে আপনার অনেক খরচ কম হয়। এছাড়াও কোন প্রকারের ছানা তৈরী করার ঝামেলা নেই। তাহলে চলুন দেখে নেওয়া যাক –

গোলাপ জামুন মিষ্টি তৈরী উপকরণ

সুজি – ১/২ কাপ, দুধ -১ ১/২ কাপ,  ঘি / বাটার – ১ টেবিল চামচ , চিনি – ২ টেবিল চামচ,  গুড়া দুধ – ২ টেবিল চামচ। তেল –  পরিমানমত ( ভাজার জন্য)
সিরার জন্য যা যা লাগবে:
চিনি -১ ১/২ কাপ, পানি – ১ কাপ।

গোলাপ জামুন মিষ্টি তৈরী প্রনালি

প্রথমে চুলায় একটি কড়াই বসিয়ে দিতে হবে। এখন কড়াই এর ভিতর ঘি / বাটার দিয়ে দিতে হবে। যখন ঘি বা বাটার গলে যাবে। তখন দুধ দিয়ে দিতে হবে। এরপর চিনি দিয়ে অপেক্ষা করতে হবে বলক আসা পর্যন্ত। যখন বলব চলে আসবে তখন অল্প অল্প করে সুজি দিয়ে দিতে হবে। তারপর নাড়তে থাকতে হবে। নাড়তে নাড়তে দেখা যাবে যে,  সুজি শুকিয়ে কড়াই থেকে ওঠে আসছে। এখন এই মিশ্রনটা একটি জায়গায় নামিয়ে ঠান্ডা করে নিতে হবে। এখন হালকা ঠান্ডা করে নিতে।
গোলাপ জামুন মিষ্টি রেসিপি
তারপর গুড়া দুধ মিশিয়ে নিতে হবে।  এখন হাত দিয়ে মেখে নিতে হবে।  এই সময় প্রথম অবস্থায় হাতে লেগে যেতে পারে। কিন্তুু মাখতে মাখতে পরে আর লাগবে না । এখন আপনারা আপনাদের পছন্দমত লম্বা গোল করে মিষ্টি  বানিয়ে নিতে হবে।  বানানো শেষ হলে  একটি কড়াইতে  পর্যাপ্ত পরিমান তেল দিয়ে দিতে। তেল যখন গরম আসবে তখন তৈরী করে রাখা  মিষ্টি দিয়ে দিতে হবে।
মিষ্টি ভাজতে ভাজতে অন্য দিকে সিরা তৈরী করে নিতে হবে। তার জন্য একটি পাতিল বসিয়ে দিতে হবে। এখন চিনি ও পানি দিয়ে দিতে হবে।তারপর চিনি আর পানি গলে যাবে। অর্থাৎ  যখন সিরা একতার হয়ে যাবে তখন নামিয়ে নিতে হবে। এই দিক দিয়ে মিষ্টিগুলোকে  হালকা বাদামি কালার করে ভেজে নিতে হবে । ভাজা শেষ হলে গরম গরম মিষ্টি সিরায় দিয়ে দিতে। এখন আধা ঘন্টার জন্য অপেক্ষা করতে হবে। আধা ঘন্টা পরে মিষ্টি পরিবেশন করতে পারবেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সংশ্লিষ্ট আরো পোস্ট