সন্দেশ রেসিপি

কাঁঠালের বিচি দিয়ে বরফি বা সন্দেশ রেসিপি

এখন বাজারে বা সবার ঘরেই মোটামুটি কাঁঠালের বিচি থাকে। কাঁঠালের বিচি দিয়ে আবার সন্দেশ?  হুম!  কাঁঠালের বিচি দিয়ে সন্দেশ তৈরি করা যায়।  আসলে এটা তৈরি না করলে বুঝা যাবে না, যে এটার  স্বাদ  কতটুকু। এটা দুধের সন্দেশ এর চেয়ে কোনো অংশে কম নয়। ঘরে বসে খুব অল্প উপকরণ দিয়ে  এই সন্দেশ তৈরি করে নিতে পারেন। এই সন্দেশ তৈরি করতে যে উপকরন  গুলো লাগবে তা সব সময় আপনার ঘরে থাকে। তাহলে চলুন জেনে নেই কাঁঠালের বিচির সন্দেশ রেসিপি –

 

 সন্দেশ রেসিপি উপকরণ  :

 কাঁঠালের বিচি  – ১ কাপ ( খোসা ছাড়িয়ে ঘয়েরি  অংশ তুলে নিতে হবে) ,  চিনি  – হাফ কাপ  বা স্বাদমতো, গুড়া দুধ –  ২ টেবিল চামচ, এলাচগুঁড়া –   ১ টেবিল স্পুন, দুধ  – হাফ কাপ, ঘি  – ১ টেবিল চামচ।

সন্দেশ রেসিপি প্রণালী :

প্রথমে খোসা ছাড়ানো কাঁঠালের বিচি ভালোভাবে ধুয়ে নিতে হবে। এখন এই কাঁঠালের বিচি গুলো কে ভালোভাবে সিদ্ধ করে নিতে হবে। আমি প্রেসার কুকার এর সাহায্যে সিদ্ধ করে নিয়েছি।  তারপর এগুলোকে মিহি করে বেটে বা ব্লেন্ডার এর সাহায্যে পেস্ট করে নিতে হবে।  ব্লেন্ডারে পেস্ট করার সময় দুধ  দিয়ে ব্লেন্ড  করে নিতে  হবে। ব্লেন্ড করা শেষ হলে চুলায় একটি ননস্টিক প্যান বসিয়ে দিতে হবে।
সন্দেশ তৈরী
প্যান যখন গরম হয়ে আসবে তখন ঘি  দিয়ে দিতে হবে। ঘি গরম হয়ে গেলে ব্লেন্ড করে রাখা কাঁঠালের বিচি পেস্ট দিয়ে দিতে হবে।  এখন একটি কাঠির সাহায্যে নাড়তে হবে।  কিছুক্ষণ নাড়ার পর চিনি দিয়ে দিতে হবে। যখন চিনি গলে গিয়ে একটি হালকা কালার চলে আসবে তখন এলাচের গুঁড়া দিয়ে দিতে হবে।  এখন অনবরত নাড়তে হবে।  কারণ না নাড়লে  নিচে পুড়ে যেতে পারে।
কিছুক্ষণ পর এক দিক দিয়ে অল্প অল্প করে গুড়া দুধ দিতে হবে এবং  অন্য  দিক দিয়ে নাড়তে থাকতে হবে।  না হয় গুড়া দুধ ধলা পেকে যাবে।  নাড়তে নাড়তে এক পর্যায়ে কাঁঠালের বিচির এই পুরটা  কড়াই থেকে উঠে আসবে ।  তখন এটা নামিয়ে নিতে হবে। হালকা গরম থাকা অবস্থা আপনাদের পছন্দমত সেভ  দিয়ে নিবেন। আমি দুই ভাবে করেছি।  একটি কে একটি সাছের  মাধ্যমে  একটু ডিজাইন  করে নিয়েছি ।
সন্দেশ
অন্যটি একটি গুলা নিয়ে প্রথমে গোল গোল করে একটি আঙ্গুল দিয়ে ভিতরে ঠিক মাঝ বরাবর একটু হালকা চাপ দিয়েছি।  দেখতে যেন সন্দেশ এর মত হয়।  আপনারা ইচ্ছে করলে বরফির  মতো করেও কেটে নিতে পারেন।  এইতো তৈরি হয়ে গেল আমার কাঁঠালের বিচির সন্দেশ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সংশ্লিষ্ট আরো পোস্ট