পুর ভরা পরোটা মজাদার একটি নাস্তার রেসিপি

পুর ভরা পরোটা যদি সকালে নাস্তার টেবিলে দেন, তাহলে সবার মন খুব অল্প সময়ে জয় করে নিতে পারবেন।

আর এই নাস্তা টা খেতে সবাই খুব পছন্দ করবে।

এই নাস্তা তৈরি করতে তেমন কোনো ঝামেলা নেই।

খুব কম সময়ে তৈরি করা যায় এই নাস্তা।

তাহলে চলুন জেনে নেই কিভাবে পুর ভরা পরোটা তৈরি করা যায় –

পুর ভরা পরোটা উপকরণ :

পুরের জন্য যা যা লাগবে

  • ডিম  – ৩ টি ( সিদ্ধ করে নিতে হবে)
  • আলু  – ৫ টটি (সিদ্ধ করে নিতে হবে)
  • পেঁয়াজ কুচি – ২  টেবিল চামচ
  • কাঁচা মরিচ কুচি – ১ (টেবিল চামচ) বা স্বাদমতো
  • লবণ –  স্বাদমতো
  • চটপটির মসলা – ১ টেবিল চামচ
  • ধনিয়া পাতা -১ টেবিল চামচ
  • তেল  – পরিমাণমতো( ভাজার জন্য)

ডো  এর জন্য যা লাগবে

  • ময়দা-  ২ কাপ,
  • তেল- ১  টেবিল চামচ,
  • লবন – স্বাদমতো,
  • নরমাল  পানি – পরিমাণমতো

 

পুর ভরা পরোটা প্রণালী:

প্রথমে একটি বড় বলে ২  কাপ ময়দা নিয়ে নিতে হবে।

এখন ময়দার সাথে এক টেবিল চামচ তেল ও স্বাদমতো লবন মিশিয়ে নিতে হবে।

এখন হাত দিয়ে এই উপকরণ গুলো ভালোভাবে মিশিয়ে নিতে হবে।

তারপর অল্প অল্প পানি দিয়ে একটি নরম ডো তৈরি করে নিতে হবে।

এখন এই ডোটাকে  একটি ঢাকনা দিয়ে আধা ঘন্টার জন্য ঢেকে রেখে দিতে হবে।

 

এখন একটি বড় বল নিয়ে নিতে হবে।

এই বলের মধ্যে সিদ্ধ করে রাখা আলু নিয়ে নিতে হবে।

তারপর একটি কাটা চামচের সাহায্যে আলুটাকে ছোট ছোট টুকরো করে নিতে হবে।

এই একই বলে সিদ্ধ করা ডিম নিয়ে নিতে হবে।

এখন কাটা চামচের সাহায্যে সিদ্ধ ডিমটাকে ছোট ছোট টুকরো করে নিতে হবে।

তারপর ডিম ও আলুর  মিশ্রণের সাথে একে একে পেঁয়াজ কুচি, কাঁচামরিচ কুচি, স্বাদমতো লবণ, ও চটপটির মসলা দিয়ে দিতে হবে।

পুর ভরা পরোটা রেসিপি

এখন ধনিয়া পাতা দিয়ে হাত দিয়ে ভালোভাবে সবগুলো উপকরণ মিশিয়ে নিতে হবে।

এখন পরোটার জন্য পুর তৈরি হয়ে গেল।

তারপর ঢাকনা খুলে ডো  টাকে একটু ভালোভাবে মেখে  নিতে হবে।

এখন এই ডো টাকে সমান ভাগে ভাগ করে নিতে হবে।

তারপর প্রতিটি  ডোকে রুটির মতো পাতলা করে বেলে নিতে হবে।

এখন একটি রুটি নিয়ে তার মধ্যে স্বাদমত পুর  দিয়ে দিতে হবে।

তারপর রুটির পুরো সাইটে পানি দিয়ে দিতে হবে।

এখন অন্য একটু রুটি তার ওপর দিয়ে হাল্কা হাতে চাপ দিয়ে দিতে হবে।

এমন করে সবগুলো পরোটা তৈরি করে নিতে হবে।

 

এখন চুলায় একটি তাওয়া / ছড়ানো কড়াই  বসিয়ে দিতে হবে।

যখন তাওয়া বা কড়াই গরম হয়ে আসবে তখন একটি পরোটা দিয়ে দিতে হবে।

পরোটার এক পাশ ছেকে   উল্টে আবার অন্য পাশ ছেকে নিতে দিতে হবে নিতে হবে।

এখন সামান্য পরিমাণ তেল পরোটার উপর দিয়ে দিতে হবে।

তারপর উল্টেপাল্টে পরোটা ভেজে নিতে হবে।

এখন যে কোন ধরনের সস বা মাংসের ঝোল এর সাথে ও খাওয়া যেতে পারে এই পরোটা।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সংশ্লিষ্ট আরো পোস্ট